shopner bd
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
×

ওজন বেশি হওয়ায় কাজ হারিয়েছেন শ্রীলেখা!

  স্বপ্নের বাংলাদেশ ডেস্ক    ০৯ মার্চ ২০২২, ১৩:০৬

ওজন বেশি হওয়ায় কাজ হারিয়েছেন শ্রীলেখা!

ফিগারের দৌড়ে সামিল না হওয়া অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। এজন্য বহু কটাক্ষের শিকার হয়েছেন, কাজ হারিয়েছেন। তবু নিজেকে কোনো গণ্ডিতে আটকে রাখেননি। বরং তিনি যেমন, তেমনভাবেই পর্দায় এসেছেন। অভিনয় দিয়েই প্রশংসা কুড়িয়েছেন।

শরীর নিয়ে প্রায়শই কটূক্তি শুনতে হয় শ্রীলেখাকে। এর বিপরীতে প্রতিবাদও জানান অভিনেত্রী। নারী দিবস উপলক্ষ্যে ফের বিষয়টি নিয়ে সরব হয়েছেন তিনি। জানিয়েছেন তার তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা।

এক সাক্ষাৎকারে শ্রীলেখা বলেন, ‘আমাকে এখনো শুনতে হয়, ‘তুমি এত মোটা হয়ে গেছ কেন?’, ‘কীভাবে এত ওজন বাড়ল তোমার’, ‘মোটা হওয়ার পরেও ছোট পোশাকে ছবি তুলতে লজ্জা করে না?’-র মতো প্রশ্ন। আর এই বডি শেমিংয়ে আমি অত্যন্ত বিরক্ত। কীভাবে কেউ কোনো মানুষকে তার চেহারা, গায়ের রং বা উচ্চতা দিয়ে বিচার করতে পারে? আমার মেয়ের জন্মের পর আমার ওজন বেড়েছে। আর এটা যে কোনো মায়ের জন্য স্বাভাবিক। কিন্তু বলুন তো, কেন মানুষ ইচ্ছে হলেই এটা নিয়ে মন্তব্য করবে?’

ওজন বেশি, এ কারণে বহু কাজ থেকেও বঞ্চিত হয়েছেন শ্রীলেখা। সেই কথা জানিয়ে অভিনেত্রী বলেন, ‘এরকম অনেকবার হয়েছে পরিচালক আমাকে ফোন করে বলেছে তিনি আমাকে কাজ দিতে পারবেন না। কারণ আমার ওজন বেশি। পরবর্তীতে আমি এটা বুঝতে পারি, আমাকে ওজন কমাতে হবে কী হবে না, সেটা আমি ঠিক করব। আমিই ঠিক করব কোন পোশাকে আমাকে ভালো দেখায়, কোন পোশাকে খারাপ।’

কাছের মানুষেরাও শ্রীলেখার ওজন নিয়ে নানা কথা শুনিয়েছে, পরামর্শ দিয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমার ঘনিষ্ঠরাও আমাকে পরামর্শ দিয়েছে, নিজেকে ঢেকে রাখা উচিত; কারণ আমার ফিগার ভালো না। কিন্তু আমি সত্যি এসব নিয়ে চিন্তিত নই, পাত্তাও দেই না। কারণ আমি জানি, কীভাবে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে ছোট পোশাক পরতে হয়।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র

প্রধান সম্পাদকঃ মোহাম্মদ আবুল বশির
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ মনির হোসেন
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়ঃ ৩৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫

মোবাইলঃ +৮৮ ০১৮১৩ - ৮১৮৬৯৬

ফোনঃ +৮৮ ০২ - ৫৫০১৩৯৩৯

ইমেইলঃ shwapnerbd@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০২১ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।