shopner bd
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১ । ৭ বৈশাখ ১৪২৮ | ৭ রমজান ১৪৪২
×

রিয়াদে বাংলাদেশি স্কুলে বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপিত

  সৌদি আরব প্রতিনিধি ১৮ মার্চ ২০২১, ১৯:০৭

রিয়াদে বাংলাদেশি স্কুলে বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপিত

সৌদি আরবের রিয়াদে অবস্থিত বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ যথাযোগ্য মর্যাদায় উৎসবমুখর পরিবেশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি পালন করেছে। 

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পনের মধ্য দিয়ে দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়। করোনা পরিস্থিতিতে বেশ সতর্কতা অবলম্বন করে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে শিক্ষার্থীদের রচিত দেয়াল পত্রিকা প্রদর্শন করা হয়। পরে অতিরিক্ত লোকসমাগম থেকে রক্ষা পেতে শিক্ষক ও অভিভাবকদের বাসায় আলাদাভাবে কেক কেটে জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়। 

সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য জীবন প্রবাহের উপর এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রতিষ্ঠানের বোর্ড অব ডাইরেক্টর্সের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোস্তাক আহম্মদ। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রমকল্যাণ উইং এর প্রথম সচিব মো. সফিকুল ইসলাম। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বোর্ড অব ডাইরেক্টর্সের ফাইন্যান্স ডাইরেক্টর মুহাম্মদ আবদুল হাকিম ও কো-ফাইন্যান্স ডাইরেক্টর ইঞ্জিনিয়ার গোফরান। 

সমাজ বিজ্ঞানের প্রভাষক মো. খাদেমুল ইসলাম ও রসায়ন বিভাগের প্রভাষক মো. দেলোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তিলাওয়াত করেন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ইব্রাহিম মুশফিক। মহান এই দিবসে রাষ্ট্রপতি প্রদত্ত বাণী পাঠ করেন বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী আরোয়া বিনতে আসিফ ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী আহনাফ আজমাইন আনান। 

স্বাগত বক্তব্যে প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মো. আফজাল হোসেন বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানমানই আমাদের প্রিয় স্বাধীন মাতৃভূমি বাংলাদেশ। দুটোই একে অন্যের পরিপূরক। আমাদের জাতীয় সত্তার সঙ্গে অবিচ্ছেদ্যভাবে মিশে আছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। 

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় ইঞ্জিনিয়ার গোফরান, বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন প্রেক্ষাপট তুলে ধরেন। পাশিপাশি তিনি ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, যার সঠিক দিক নির্দেশনায় আমরা মাত্র নয় মাসে স্বাধীনতা অর্জন করে বিশ্ববাসীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলাম। আর সেই মহামানবকে কিছু বিপদগামী সেনা সদস্য ১৯৭৫ সালে সপরিবারকে নির্মমভাবে হত্যা করে জাতির ইতিাসকে কলঙ্কিত করেছে। তিনি তাদের প্রতি তীব্র ঘৃণা প্রকাশ করেন। বর্তমানে জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে দেশ পরিচালনা করে উন্নত বিশ্বের দিকে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রচেষ্টা অব্যহত রাখায় তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। 

যার আহ্বানে দেশ মাতৃকার টানে সবাই যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে দেশকে স্বাধীন করেছিল সেই বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন মুহাম্মদ আবদুল হাকিম। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু তার ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণে জাতিকে স্বাধীনতা অর্জনের সকল দিক নির্দেশনাই প্রদান করেছিলেন। সেই ৭ মার্চের বেশ কিছু উদ্ধৃতি তিনি তার বক্তব্যে তুলে ধরেন। মুসলিম উম্মার জন্য বঙ্গবন্ধুর বেশ কিছু উদ্যোগের কথাও তিনি তুলে ধরেন। 

প্রধান অতিথি মো. সফিকুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ একটি অন্যটির প্রতিশব্দ। একটিকে বাদ দিয়ে অন্যটি কল্পনা করা যায় না। দেশে প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে তিনি প্রত্যক্ষভাবে সংযুক্ত ছিলেন। কখনও কারাগারে থাকলেও আন্দোলন থেকে বিরত ছিলেন না। ভাষা আন্দোলন চলাকালে কারাগারে থেকেও ভাষার জন্য অনশন করেছিলেন। ৭মার্চ একটি স্বাধীন দেশের জন্য সকল রূপরেখা উপস্থাপন করেছিলেন। তার নেতৃত্বেই আমরা স্বাধীনতা অর্জন করি। 

সভাপতি মোহাম্মদ মোস্তাক আহম্মদ বঙ্গবন্ধুর জন্ম থেকে মৃত্যু অবধি এক বিস্তারিত প্রতিবেদন তুলে ধরেন তার বক্তৃতায়। তিনি বলেন, বাংলার রাজনীতির বরপুত্র বঙ্গবন্ধু ছিলেন আমাদের স্বাধীন বাংলাদেশের রূপকার। বাংলার রাজনীতির পথ কখনোই মসৃণ ছিল না কিন্ত সেই দুর্গম পথে অসাধ্যকে সাধন করে তিনিই এনে দিয়েছিলেন আমাদের মুক্তির বারতা। 
তিনি আমাদের স্বাধিকার আন্দেলনে যুক্ত হয়ে দেশের মানুষের মুক্তির জন্য মাত্র পঞ্চান্ন বছর বয়সে ৪৬৮২ দিন জেলে কাটিয়েছেন। এ ধরণের আত্মত্যাগ একজন মহামানব হিসেবে বঙ্গবন্ধুর পক্ষেই সম্ভব ছিল। কোন অপশক্তি তাকে থামাতে পারেনি। তর্জনির গর্জনিতে এক ঐতিহাসিক ডাকে সমগ্র দেশ প্রেমিক জনতাকে সঙ্গে নিয়ে দেশকে শত্রু মুক্ত করে স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। তার যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রসঙ্গটিও তিনি তার বক্তব্যে তুলে আনেন।

পরে দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা বিষয়ের সিনিয়র শিক্ষক নেসার উদ্দিন। 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র

প্রধান সম্পাদকঃ মোহাম্মদ আবুল বশির
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ মনির হোসেন
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়ঃ ৩৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫

মোবাইলঃ +৮৮ ০১৮১৩ - ৮১৮৬৯৬

ফোনঃ +৮৮ ০২ - ৫৫০১৩৯৩৯

ইমেইলঃ shwapnerbd@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০২১ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।